• শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

রাঙামাটির ১৮ দুর্গম কেন্দ্রে যেতে ভরসা হেলিকপ্টার

Dev Farhad / ৩৫৬২ Time View
Update : রবিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২৩

রাঙামাটির ১৮ দুর্গম কেন্দ্রে যেতে ভরসা হেলিকপ্টার

“প্রতিবছরের মত এবারও হেলিকপ্টারের জন্য নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছি; তারা ব্যবস্থা নিয়ে আমাদের জানাবেন।”

 

পার্বত্য রাঙামাটি আসনের ১৮টি ভোটকেন্দ্র দুর্গম এলাকার হওয়ায় ভোটের সরঞ্জাম ও লোকবল হেলিকপ্টারে সহায়তায় পাঠানো হয়।

নির্বাচনের দিন ভোটাররা পাহাড় ডিঙ্গিয়ে কোনো রকমে এসব ভোটকেন্দ্রে পৌঁছাতে পারলেও ভোটের কাজে নিয়োজিত লোজনদের যেতে হয় একদিন আগেই।

কোনো কোনো কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য হেলিপ্যাড থেকে নেমেও হাঁটতে হয় দীর্ঘপথ, নির্বাচনের সব সরঞ্জাম কাঁধে নিয়েই।

এসব কেন্দ্রের বেশিরভাগই মোবাইল নেটওয়ার্কের আওতার বাইরে, ফলে ফলাফলও পেতে ‘দেরি’ হয়।

রাঙামাটির ওই ১৮টি কেন্দ্রে প্রতিবছর এভাবেই ভোট অনুষ্ঠিত হয় বলে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ মোশাররফ হোসন খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান।

কেন্দ্রগুলোতে ভোটের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক বলেন, “যেহেতু কেন্দ্রগুলো দুর্গম এলাকায়, তাই প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, পুলিশ ও আনসারসহ ভোটের কাজে নিয়োজিত লোকজনকে সরঞ্জামসহ ভোটের আগের দিন হেলিকপ্টারে করে পাঠানো হয়।

“প্রতিবছরের মত এবারও হেলিকপ্টারের জন্য নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছি; তারা ব্যবস্থা নিয়ে আমাদের জানাবেন।”

নির্বাচন কমিশন থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই বছরও রাঙামাটির ১৮টি কেন্দ্রে ভোটের লোকবল ও সরঞ্জাম পাঠানো হবে হেলিকপ্টারের সহায়তায়।

এর মধ্যে বাঘাইছড়ি উপজেলায় ছয়টি, বরকল উপজেলায় দুটি, জুরাছড়ি উপজেলায় সাতটি ও বিলাইছড়ি উপজেলায় তিনটি ‘হেলিসর্টি’ ভোটকেন্দ্র রয়েছে। (‘হেলিসর্টি’ অর্থ এই ১৮টি ভোটকেন্দ্রে নির্বাচনি সরঞ্জাম ও নির্বাচন কর্মীদের যেতে হবে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে।)

 

এই ১৮টি ‘হেলিসর্টি’ কেন্দ্রের মোট ভোটার ২৩ হাজার ৬৩৮ জন।

বাঘাইছড়ি উপজেলার নিউ লংকর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ হাজার ২৪৩, ভাইবোনছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২ হাজার ১২৯, তুইচুই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১ হাজার ৯৫১, বেটলিং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫৮৩, শিয়ালদাইলুই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১ হাজার ৫৭৩ ও সিজক দোজর নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১ হাজার ৪১৩ জন ভোটার রয়েছেন।

এর মধ্যে পাঁচটি কেন্দ্র সাজেক ইউনিয়নে। বাকি একটি বাঘাইছড়ি ইউনিয়নে।

বরকল উপজেলার আইমাছড়া ইউনিয়নের সিএমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটার ২ হাজার ৩৫২ ও বড় হরিণা ইউনিয়নের শুকনাছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১ হাজার ৩৯২ জন ভোটার আছে।

জুরাছড়ি উপজেলার ঘিলাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটার ১ হাজার ৩৮৫, শৈয়ালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১ হাজার ১৩৩, শিলছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ হাজার ২৭৯, ফকিরাছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ২৪২ এবং ফরেস্ট ভেলেজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৮০০ জন।

এ ছাড়া ভুয়াতুলীছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ২২২, বরকলক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ১৫৭ জন এবং বগাখালী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ১৮৮ জন।

এই ভোটকেন্দ্রগুলো মৈদং, জুরাছড়ি ও দুমদুইম্যা ইউনিয়নে অবস্থিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর